1. admin@birbangla24.com : birbangla24.com :
  2. tipuisd@gmail.com : বীর বাংলা ডেক্সঃ : বীর বাংলা ডেক্সঃ
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঈশ্বরদীর সুজন নিহত ঈশ্বরদী পৌরবাসীর উপর করের বোঝা চাপান হবে না– মেয়র ইছাহক আলী মালিথা ঈশ্বরদীর চরগড়গড়ির খাইরুল হত্যা মামলার প্রধান আসামী মজনু গ্রেফতার ঈশ্বরদী নাগরিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী জমজম হাসপাতালে ঝাড়ুদার দিয়ে প্রসব করানোর অভিযোগ | নবজাতকের মৃত্যু ঈশ্বরদীতে ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্র আহতের প্রতিবাদে সহপাঠীদের মানববন্ধন ঈশ্বরদীতে সহপাঠীর ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র আহত ঈশ্বরদী ইপিজেড এলাকায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন | স্বামী আটক ঈশ্বরদীতে সাপের কামড়ে কৃষকের মৃত্যু আজ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী

লালপুরে স্বাস্থ্যকর্মী বীথি হত্যা মামলায় প্রেমিক সাদ্দাম গ্রেফতার

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১১৬ বার পড়া হয়েছে
 বীর বাংলা নিউজঃ
লালপুরে আম বাগানের পাশে মাহমুদা আক্তার বীথি(৩২) নামে এক স্বাস্থ্য সেবিকাকে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত মূল আসামি প্রেমিক জাহিদ হাসান সাদ্দামকে(২৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি ছুরি উদ্ধার করেছে পুলিশ।শুক্রবার(২৪ নভেম্বর) রাতে বড়াইগ্রাম উপজেলার আহমেদপুর থেকে অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।আজ শনিবার(২৫ নভেম্বর) সকালে নাটোর পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
অভিযুক্ত আসামি মোঃ জাহিদ হাসান সাদ্দামকে(২৯) বড়াইগ্রাম উপজেলার কামারদহ এলাকার মোঃ সোহরাব হোসেনের ছেলে।পুলিশ জানায়, নিহত মাহমুদা আক্তার বীথি লালপুরে গোপালপুর মুক্তার জেনারেল হাসপাতালে অফিস সহকারী হিসেবে কাজ করতেন। প্রতিদিন কাজ শেষে বাড়ি ফিরতেন। কিন্তু শনিবারে অনেক রাত হলেও তিনি বাড়ি না ফেরায় ভিকটিমের বাবা মো. আমজাদ হোসেন মেয়েকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান পাননি।
পরে শুক্রবার সকালে লালপুর উপজেলার গোপালপুর তোফাকাটা মোড় এলাকার রাস্তার পাশে ওই নারীর গলাকাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে পুলিশ তদন্ত শুরু করেন। এ ঘটনায় নিহতের বাবা একটি মামলা দায়ের করেন।
পুলিশ আরও জানায়, অভিযুক্ত আসামি সাদ্দামের সঙ্গে ভিকটিম বিথীর দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক সম্পর্ক চলে আসছিল। একপর্যায়ে ভিকটিম বিথী আসামি সাদ্দামকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। আসামি সাদ্দাম বিয়ে না করতে বিভিন্ন টালবাহানা করতে থাকে। এতে বিভিন্ন সময়ে ভিকটিম বিথী সম্পর্ক ফাঁস করে দেয়ার কথা বলে কৌশলে সাদ্দামের কাছ থেকে টাকা-পয়সা নিতেন। এতে সাদ্দাম বিরক্ত হয়ে বিথীকে ২৩ নভেম্বর সন্ধ্যায় কৌশলে ডেকে নেয়।
পরে গোপালপুর পৌরসভার তোফাকাটা মোড়ে রাস্তার পাশে আম বাগানে ভিকটিমকে ধারালো ছুরি দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে ও গলা কেটে নৃশংসভাবে হত্যা করে ফেলে যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত