1. admin@birbangla24.com : birbangla24.com :
  2. tipuisd@gmail.com : বীর বাংলা ডেক্সঃ : বীর বাংলা ডেক্সঃ
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঈশ্বরদীর সুজন নিহত ঈশ্বরদী পৌরবাসীর উপর করের বোঝা চাপান হবে না– মেয়র ইছাহক আলী মালিথা ঈশ্বরদীর চরগড়গড়ির খাইরুল হত্যা মামলার প্রধান আসামী মজনু গ্রেফতার ঈশ্বরদী নাগরিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী জমজম হাসপাতালে ঝাড়ুদার দিয়ে প্রসব করানোর অভিযোগ | নবজাতকের মৃত্যু ঈশ্বরদীতে ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্র আহতের প্রতিবাদে সহপাঠীদের মানববন্ধন ঈশ্বরদীতে সহপাঠীর ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র আহত ঈশ্বরদী ইপিজেড এলাকায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন | স্বামী আটক ঈশ্বরদীতে সাপের কামড়ে কৃষকের মৃত্যু আজ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী

ঈশ্বরদীতে শিশু শিক্ষার্থী নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত | রামেক হাসপাতালে মৃত্যু

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

বীর বাংলা নিউজঃ

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত মো. সোয়াদ (৭) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

সোয়াদ  ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়ন দিঘা গ্রামের সামিউল ইসলাম এর ছেলে। সে দীঘা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র।

সোমবার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। এর আগে রোববার সন্ধ্যায় তার শরীরে নিপাহ ভাইরাস শনাক্ত হয়।

রামেক হাসপাতালের আইসিইউয়ের ইনচার্জ আবু হেনা মোস্তফা কামাল জানান, শুক্রবার সকালে খেজুরের কাঁচা রস খেয়েছিল সোয়াদ। এরপর জ্বর ও খিঁচুনি দেখা দেয়। একপর্যায়ে সে অচেতন হয়ে পড়ে। শুক্রবার বিকেলে তাকে রামেক হাসপাতালে আনা হয়। শনিবার সকালে শিশুটিকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসকদের সন্দেহ হওয়ায় তার নিপাহ ভাইরাসের পরীক্ষা করা হয়। এতে নিপাহ ভাইরাস শনাক্ত হয়।

আইইডিসিআরের বিজ্ঞানী ও গবেষকেরা বলেন, নিপাহ ভাইরাসে মৃত্যুর পর থেকে রাজশাহীতে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এর একটি টিম কাজ করছে। মৃত রোগীর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদেরও স্যাম্পল সংগ্রহ করেছে তারা।

এদিকে, নিপাহ ভাইরাসে মৃত্যুর পর থেকে খেজুরের রস খাওয়াসহ বাদুড় ও পাখি খাওয়া অন্যান্য ফল না খাওয়ার বিষয়ে জোর তাগিদ দিচ্ছেন সংশ্লিষ্টরা।

রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. আবু সাঈদ মোহাম্মদ ফারুক বলেন, “নিপা ভাইরাস নিয়ে আমাদের সতর্ক হতে হবে। তবে আতঙ্কিত হওয়া যাবে না। আর নিপা আক্রান্ত হয়ে যেহেতু দুইজন মারা গেছেন আরও সংক্রমণের ঝুঁকি আছে। তাই খেজুরের রস খাওয়া যাবে না। আর যদি খেতেই হয়। তবে ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় গরম করে তারপর খেতে হবে।” এছাড়া পাখি খাওয়া ফল না খাওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত