1. admin@birbangla24.com : birbangla24.com :
  2. tipuisd@gmail.com : বীর বাংলা ডেক্সঃ : বীর বাংলা ডেক্সঃ
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০২:৫০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঈশ্বরদীতে বঙ্গবন্ধু (অনুর্ধ-১৭) বালক ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন ঈশ্বরদীতে বিনা মূল্যে স্বাস্থ সেবা প্রদান ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঈশ্বরদীর সুজন নিহত ঈশ্বরদী পৌরবাসীর উপর করের বোঝা চাপান হবে না– মেয়র ইছাহক আলী মালিথা ঈশ্বরদীর চরগড়গড়ির খাইরুল হত্যা মামলার প্রধান আসামী মজনু গ্রেফতার ঈশ্বরদী নাগরিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী জমজম হাসপাতালে ঝাড়ুদার দিয়ে প্রসব করানোর অভিযোগ | নবজাতকের মৃত্যু ঈশ্বরদীতে ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্র আহতের প্রতিবাদে সহপাঠীদের মানববন্ধন ঈশ্বরদীতে সহপাঠীর ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র আহত ঈশ্বরদী ইপিজেড এলাকায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন | স্বামী আটক

ঈশ্বরদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে যুবলীগ নেতা খুন | আহত-২০

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

বীর বাংলা নিউজঃ

ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের চরগড়গড়ি আলহাজ্বমোড় এলাকায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে খায়রুল ইসলাম (৪০) নামে যুবলীগ নেতা খুন ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আহতরা ঈশ্বরদী, পাবনা ও রাজশাহী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। শুক্রবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। মৃত খায়রুল ইসলাম ওই এলাকার  নসিম উদ্দিন প্রামানিকের ছেলে ও সাহাপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সভাপতি।

সংঘর্ষে আহতরা হলেন, সাজু হুদী (৫০), সাহাবুদ্দিন (৫০), জামাত ফকির (৫০), নাসিরউদ্দিন (৩০), জিল্লুর (৫০), তরিকুল (৪০), শাহ জামাল (৪০), আন্টু (৩০), হুজুর আলী (৫৮), নাসির (৩০), ওলিউর রহমান (৩৫), মজিদ (৩৫), আরিফ আলী (৩২), ওলিবুল (৩২), মোঃ মিঠুন (৩৫), মোসলেম উদ্দিন (৬০), মানু প্রামানিক (৫৫), মোঃ খোকন প্রামাণিক (৩৫), নুর বেগমের (৫০) নাম জানা গেছে।

 

তবে আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সুত্র মতে, বেশ কিছুদিন ধরে চলাচলের রাস্তা, জমিজমা ও নির্বাচনীকালিন বিষয় নিয়ে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রামানিক বংশের সঙ্গে বিএনপি জামায়াত সমর্থিত হুদি বংশের বিরোধ চলে আসছিল। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার আওয়ামীলীগ সমর্থিত হুজুর আলীকে মারধর করে হুদি বংশের লোকজন।

বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করা হলেও উত্তেজনা থেকেই যায়। এই উত্তেজনা থেকেই শুক্রবার দুই গ্রুপের মধ্যে তীব্র সংঘর্ষ হয়।

এতে ধারালো হাসুয়া, চাপাতি, লোহার রডের আঘাতে দুই পক্ষের অন্ততপক্ষে ২০/২৫ জন আহত হয়। এর মধ্যে খায়রুল ইসলাম নামের একজন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। হুদি বংশের ঈসাই প্রামানিক (৪৮) হাসুয়ার আঘাতে বাম হাতের কনুই পর্যন্ত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

নিহত খায়রুল ইসলাম প্রামানিকের ভাতিজা মাহমুদ জুয়েল অভিযোগ করে জানান, ঘটনার দিন দুপুরে জামাত ফকির নামে তার এক চাচা বাড়িতে আসার সময় হুদিদের লোকজন মারধর করে। খবর শুনে লোকজন এগিয়ে গেলে হুদিদের মকলেছুর রহমান মজনু, রিয়াজুল, শাহিন ও নুরুর নেতৃত্বে ২০-৩০ জনের একটি সশস্ত্র দল তাদের উপর হামলা চালায়। এতে তার চাচা খায়রুল মারা যায়। ১৫/২০ জন আহত হয়।

ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঋত্তিকা ইসলাম জানান, আহতদের অধিকাংশই গুরুতর হওয়ায় পাবনা ও রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে ৮ জনের অবস্থা আশংকাজনক।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বেধেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এই ঘটনায় খায়রুল ইসলাম নামের একজন মারা গেছে। অনেকেই আহত হয়েছে। মরদেহ থানা নেওয়া হয়েছে। এলাকার উত্তেজনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ, ডিবিপুলিশ ও র‍্যাব সদস্যরা অবস্থান নিয়েছে। মারামারির আসল কারণ জানার চেষ্টা ও হত্যাকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত